1. admin@channeldurjoy.com : admin : Salahuddin Sagor
  2. news.channeldurjoy@gmail.com : Editor :
ডাক্তারের অভাবে হুমকির মুখে চৌগাছা হাসপাতালের চিকিৎসাসেবা! - চ্যানেল দুর্জয়
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৯:১৯ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত :
যশোরে মডার্ন ক্লিনিক থেকে লাফিয়ে পড়ে রোগীর মৃত্যু ঝিনাইদহে প্রবাসীর স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা ‘বিদেশিরা ক্ষমতায় বসাবে, বিএনপির সেই স্বপ্ন কর্পূরের মতো উবে গেছে’ ‘আমরা কেউই আশা করিনি দুই ম্যাচে হারবো’ এমপি আনার খুন: গ্রেফতার সিয়ামই কসাই জিহাদ কেশবপুরে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন মনিরামপুর কল্যাণ সমিতির নতুন কমিটির অভিষেক – সভাপতি জয়নাল, সম্পাদক সঞ্জয় চৌগাছায় আনারস প্রতীক নিয়ে তৃতীয়বার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন এস এম হাবিব কায়েমকোলার মাদক কারবারি মিঠুর বীরদর্পে অব্যহত প্রতারণা! চৌগাছায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শামীম রেজা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত

ডাক্তারের অভাবে হুমকির মুখে চৌগাছা হাসপাতালের চিকিৎসাসেবা!

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২৪

রায়হান হোসেন, চৌগাছাঃ

উপজেলা পর্যায়ে বার বার পুরষ্কারপ্রাপ্ত যশোরের চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বর্তমান চিকিৎসা সেবাটাই এখন হুমকির মুখে। বর্তমানে প্রায় ২ লাখ উপজেলাবাসি এবং হাজারো বহিরাগতদের চিকিৎসা সেবায় হাসপাতালে ডাক্তার আছেন মাত্র ৭জন। অভিযোগ উঠেছে আগে থেকে চিকিৎসক সংকট এবং কিছু চিকিৎসকের স্বেচ্ছাচারিতা এবং দায়িত্বজ্ঞানহীন কর্মকান্ডের জন্যই এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।


গত ১৫ এপ্রিল হাসপাতালে ডাক্তার সংকটের বিষয়টি জানার পরে ১৬ এপ্রিল সকাল ১০টায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাজির হলে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। দেখা যায় সকাল থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.লুৎফুন্নাহার লাকি, আরএমওর দায়িত্বপালনকারি ডা. ইমরান এবং ডা. সুরাইয়া পারভিন জরুরি বিভাগসহ শত শত রোগীদের সেবা দিচ্ছেন। এবং বিকালের শিফটে ডা.খন্দকার জুলকার ইসলাম দায়িত্ব পালন করবেন।

হঠাৎ করেই চিকিৎসক সংকটের কারন জানতে চাইলে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.লুৎফুন্নাহার লাকি বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই চিকিৎসক সংকটে ভুগছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। তিনি বলেন হাসপাতালে ১০টি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পদের বিপরীতে অফিসিয়ালি আছেন ৫জন। তাদের একজনের পদের বিপরীতে বাকি ৪জনের ১জন ছুটি ছাড়াই ৬ মাস অনুপস্থিত এবং ২জন প্রেশনে অন্যত্র এবং একজন এনসথেসিষ্ট (অজ্ঞানের ডাক্তার)। আর আরএমও হিসেবে এখানে কেউই নেই। ১৯টা মেডিকেল অফিসার পদের বিপরীতে অফিসিয়ালি আছেন ৯জন। তাদের মধ্যে ৩৩ বিসিএসের ডা.মৃদুল কান্তি ২০১৪ সালের ২৬ আগষ্ট জয়েন্ট করে ১দিন অফিস করে ১০ বছরের মধ্যে আর আসেননি। এবং মেডিকেল অফিসার ডা. শান্তা ১ বছর হাসপাতালে আসেননা। তারপরেও চলছিল কিন্তু হঠাৎ করে ৪জন মেডিকেল অফিসারের অন্যত্র বদলি হওয়াতে চিকিৎসক সংকট দেখা দিয়েছে। ডা. লাকি বলেন, সকল বিষয়ে আমি আমার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে সকল কিছু লিখিতভাবে জানিয়েছি।

বিশ্বস্ত সুত্র জানায়, বিশেষজ্ঞ ডাক্তার গোলাম রসুল (অর্থপেডিকস্) ছুটি ছাড়া ৬ মাস অন্যত্র ডাক্তারি করছেন। এবং মেডিকেল অফিসার ডা. মৃদুল কান্তি ১০ বছর এবং ডা.শান্তা ১ বছর অনুপস্থিত থাকলেও তারা মূলত প্রবাসে আছেন বলে জানা গেছে।
এদিকে হাসপাতালে পর্যাপ্ত ঔষুধ এবং ডাক্তারি সেবার মান ভাল হওয়ার কারনে দিন দিন রোগীর সংখ্যা যেমন বৃদ্ধি পাচ্ছে তেমনি দীর্ঘক্ষন লাইনে দাড়িয়ে থাকার কারনে রোগী এবং তার সাথে থাকা সাহায্যকারিরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠছেন। অন্যদিকে এই প্রচন্ড তাপাদহে সামান্য কজন চিকিৎসক শত শত রোগীকে সেবা দিতে গিয়ে রীতিমতো হাপিয়ে উঠছেন। তাই হাসপাতালের সেবার মান অক্ষুন্ন রাখতে এবং অসুস্থ মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে অতিদ্রুত স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের শুন্য পদে চিকিৎসক নিয়োগে সরকারের যথাযথ কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন উপজেলা আপামর জনগন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের দিন-তারিখ

  • শনিবার (সকাল ৯:১৯)
  • ২৫শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৭ই জিলকদ ১৪৪৫ হিজরি
  • ১১ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)

এই মুহুর্তে সরাসরি সংযুক্ত আছেন

Live visitors
112
4029086
Total Visitors